How To Earn Money Blogging | Free Blogger | Bloging থেকে টাকা ইনকাম। Canbebangali

 

Blogger

How to earn money blogging

How To Earn Money Blogging | Free Blogger | Bloging থেকে টাকা ইনকাম। Canbebangali

আজকের আলোচনাতে ফ্রি ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম (How To Earn Money Blogger) ব্লোগ অ্যাকাউন্ট কিভাবে বানাবেন (Create Blog Account) ব্লোগার এর সুবিধা ও অসুবিধা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

ব্লোগার / Blogger

ব্লোগার গুগল এর প্লাটফর্ম। এখানে আপনি নিজের ইচ্ছা মতো প্রতিবেদন বা অ্যাটিকেল লিখে সেখান থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

আপনি নিজের টেলেন্ট লোকের সামনে দেখাতে পারবেন। ব্লোগারে শুধু প্রতিবেদন বা অ্যাটিকেল লেখার জন্য নয়। এখানে আপনি ই-কমার্স এর মতো ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

এছাড়া, আপনি কোনো প্রোডাক্ট তৈরি করেছেন, যা আপনি এই ব্লোগার এর সাহায্যে লোকের কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন।

আজকের আলোচনাতে ব্লোগার এর সম্পুর্ণ তথ্য বিস্তারিত ভাবে জানতে পারবেন (Blogger A to Z Information in Bangla)

ব্লোগার থেকে আপনিও যদি টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনাকে এই প্রতিবেদনটি সম্পুর্ন পড়তে হবে। তাহলে আর সময় নষ্ট না করে আজকের আলোচনাতে যাওয়া যাক।

 Table of Contents;

How To Create Blogger Account

• How To Earn Money Free Blogger

• Blogger Benifits

ব্লোগারে অ্যাকাউন্ট কিভাবে বানাবেন (How To Create Blogger Account)

বন্ধুগন, ব্লোগারে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য আপনাকে বিশেষ কোনো যোগ্যতার প্রয়োজন হবে না।‌ আপনি সাধারণ কিছু স্টেপে এই ফ্রি ব্লোগার অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন(How to Start Bloging)

ব্লোগার অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য আপনাকে প্রথমে একটা ই-মেইল আইডি তৈরি করতে হবে। যা আপনার কাছে আগের থেকেই আছে।

এখন আপনি গুগল ক্সম খুলে নিন, এরপর আপনি সার্চ করুন – Create A Blogger Account

এখন আপনার সামনে কিছু স্টেপ দেখতে পাবেন যা আপনাকে আগে কাজে লাগবে।

কিন্তু এখানে আপনি একটু নিচের দিকে দেখতে পাবেন www.blogger.com দেখতে পাবেন। এবং এখানে Sign in- Blogger.com লেখা দেখতে পাবেন।

এখন আপনাকে এখানে ক্লিক করতে হবে। এখানে ‌ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে ‌আপনার ই-মেইল আইডি চাইবে যা আপনি দিয়ে দিবেন। এখন আপনি ব্লোগার এর ওয়েবসাইট এ চলে আসবেন। এখান থেকে শুরু হবে আপনার আসল কাজ।

এখানে আপনার থেকে একটা নাম চাইছে, যেটা আপনি সবাইকে দেখাতে চান। যেমন আমার হল canbebangali

আপনি একটা নাম দিয়ে দিবেন। 

এরপর আপনাকে আপনার ওয়েবসাইট এর URL দিতে হবে। যেমন আমার URL – canbebangali.con আপনার ক্ষেত্রে আলাদা হবে। এখানে আপনার URL হবে – xyz.blogspot.com এর রকম হওয়ার কারণ হল- আপনি যদি সম্পুর্ন ফ্রি তে ব্লোগার ব্যবহার করেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইট এর ইউআরএল xyz.blogspot.com এই রকম হবে। 

কিন্তু, এখানে আমার URL – canbebangali.con এটা নেওয়ার জন্য টাকা খরচ করতে হয়। এটাকে Domain Name বলে।‌

যাই হোক আসল পয়েন্ট এ আসা যাক, ওয়েবসাইট এর URL দেওয়ার পর আপনি Next করুন। এবং আবার একটা নাম দিন যা আপনার Display Name হবে। এখানে আপনি নিজের ওয়েবসাইট এর নাম দেবেন। এতটুকু করলেই আপনার ওয়েবসাইট তৈরি হয়ে যাবে, এখন শুধু আপনাকে নতুন নতুন কনটেন্ট লিখতে হবে এবং পোস্ট করতে হবে।

সংক্ষিপ্ত ভাবে;

• First Open Google Chrome

• Search – Create A Blogger Account

• Click www.blogger.com Website

• Select Your Email I’d

• Type Your Website Tittle

• Type Your Website URL

• Type Your Website Display Name

• Finish

Your Website Is Ready.

ব্লোগার থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় (How To Earn Money Blogger)

ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে বিশেষ কিছু জানতে হবে না। আপনি সাধারণ কিছু সতর্কতা অবলম্বন করে ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার মুখ্য রাস্তা হল- Google Adsense

এছাড়াও আরো কিছু রাস্তা আছে, যা থেকে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আজকের আলোচনাতে ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় জানবো। আপনিও যদি টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে সঙ্গে থাকুন।

ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার কিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট-

• Google Adsense

• Affiliate Marketing

• Sponsership

1. Google Adsense

ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য Google Adsense খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যে সকল ‌ব্লোগার ব্লোগিং করে তাদের ইনকামের মেন উৎস হল এই গুগল এডসেন্স। 

এখান থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে গুগল এডসেন্স এর অনুমতি (Google Adsense Approval) নিতে হয়। যা একটা নতুন ব্লোগারের জন্য খুবই কষ্টকর ব্যাপার।

গুগল এডসেন্স এর অনুমতি নেওয়ার জন্য আপনাকে ব্লোগার ওয়েবসাইট এ নির্দিষ্ট পরিমানের প্রতিবেদন বা অ্যাটিকেল লিখতে হবে।

আপনি যদি গুগল এডসেন্স এর সকল নিয়মাবলী মেনে অ্যাটিকেল লিখতে পারেন তাহলে আপনি খুবই তারাতারি গুগল এডসেন্স এর অনুমতি পেয়ে যাবেন।

গুগল এডসেন্স এর অনুমতি পেয়ে যাওয়ার পর আপনার ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাড দেখাতে শুরু করবে। এবং এই অ্যাড গুলোর মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

2. Affiliate Marketing

ব্লোগার থেকে টাকা ইনকাম করার আর একটা রাস্তা হল অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং (How To Earn Money Affiliate Marketing Blog

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং(Affiliate Marketing) হল অন্যের প্রোডাক্টকে নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম এর সাহায্য অন্যদের কাছে তুলে ধরা। 

এখানে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা সম্ভব নয়। এর জন্য আলাদা একটা অ্যাটিকেল খুবই তারাতারি এই ওয়েবসাইটে আসবে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর একটা উদাহরণ দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছি- আপনার ‌ইউটিউব এ অনেক Unboxing ভিডিও দেখে থাকেন। যেমন মোবাইল, কম্পিউটার আরো প্রচুর প্রোডাক্ট এর ।

আপনি এই Unboxing ভিডিও এর Discretion এ এই সকল প্রকার প্রোডাক্ট কেনার লিঙ্ক পেয়ে যাবেন। যেখান থেকে আপনি এই মোবাইল বা কম্পিউটার কিনতে পারবেন। 

এখানে যে লিঙ্ক ব্যবহার করা হয়েছে এই লিঙ্ক কেই বলে অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং আপনি বিভিন্ন ই-কমার্স সাইট এর সঙ্গে করতে পারেন বা কোনো কোম্পানির হয়ে করতে পারবেন। যেমন- Amazon Affiliate Marketing, Flipkart Affiliate Marketing, Bloging Affiliate Marketing ইত্যাদি।

আপনি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে কাজ করার আগে ভালো করে রিসার্চ করে নিবেন, যে আপনার জন্য কোনটা ভালো কাজ করবে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে কোনো প্রকার টাকা খরচ করতে হবে না। এটা সম্পূর্ণ ফ্রি প্রকিয়া।

গুগল এডসেন্স এর ইনকামের সাথে সাথে এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কেউ ব্যবহার করতে পারবেন।

3. Sponsorship

ব্লোগার ওয়েবসাইটে সবচেয়ে ভালো এবং খারাপ টাকা ইনকাম করার প্রক্সিয়া হল Sponsorship

আমি এখানে Sponsorship প্রক্সিয়াকে ভালো এবং খারাপ বলেছি এর কারণ আপনাকে জানতে হবে।

সর্বপ্রথম Sponsorship সম্পর্কে জানতে হবে। Sponsorship হল এমন একটি প্রক্সিয়া যেখানে আপনি নিজের ওয়েবসাইট বা সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে অন্যের ওয়েবসাইট বা যেকোনো প্রোড়াক্ট কে সরাসরি দর্শকের সামনে তুলে ধরা বা এটা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা। 

Sponsorship এর একটা উদাহরণ দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছি, আপনি ইউটিউব এ অনেকের ভিডিও দেখেন। ভিডিও দেখার সময় ভিডিও এর মধ্যে দেখবেন কোনো অ্যাপ বা প্রোডাক্ট নিয়ে আলোচনা করা হয়। যেমন Carrymaniti mivi এর হেডফোনে কথা বলে, ashish chanchalani Winzo, Binomo, 1xBET ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করে। 

এগুলোকে Sponsorship বলে।

Sponsorship থেকে সবচেয়ে বেশি টাকা ইনকাম করা সম্ভব। এখানে আপনি প্রতিমাসে একটা বা দুইটা Sponsorship করলে 50-60 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

কিন্তু এখানে একটা সমস্যা আছে, এখন কার সময় প্রচুর ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক পেজ, ইন্ট্রাগ্ৰাম অ্যাকাউন্ট হ্যাক হচ্ছে এই Sponsorship এর জন্য।

আপনি যদি নতুন ব্লোগিং শুরু করেছেন তাহলে আপনি Sponsorship থেকে দূরে থাকুন, এছাড়া আপনি যদি Sponsorship নিতে চান তাহলে আগে সঠিক ভাবে জেনে বুঝে তবেই Sponsorship এর জন্য আবেদন করবেন। 

Sponsorship নিয়ে আলাদা একটা অ্যাটিকেল লিখবো যেখানে Sponsorship এর A to Z Information দেওয়া থাকবে।

Blogger Benifits

ব্লোগার এর বেনিফিট অনেক এটা একটা গুগল এর প্লাটফর্ম। আজকের সময় বিশ্বের সবচেয়ে বড়ো সার্চ ইঞ্জিন হল গুগল। 

ব্লোগার সম্পুর্ন ফ্রি একটি প্রক্সিয়া। এখানে আপনি নিজের ইচ্ছা মতো যেকোনো প্রতিবেদন বা অ্যাটিকেল লিখতে পারবেন। এছাড়াও আপনি এখানে ই-কমার্স এর মতো ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

আপনি যদি ব্লোগিং করার জন্য WordPress এর ব্যবহার করেন তাহলে আপনাকে কম করে 3-5 হাজার টাকা খরচ করতে হবে। 

কিন্তু, ব্লোগার সম্পুর্ন ফ্রি এখানে এক টাকাও খরচ করতে হবে না। আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইট এর জন্য একটা Domain Name কিনতে পারেন। যার বার্ষিক খরচ 500-700 টাকা । যেমন – .com, .in, .xyz, .net ইত্যাদি।

আপনি যদি নতুন ব্লোগিং শুরু করেছেন তাহলে আপনি ফ্রি ব্লোগার(Free Blogger) নিয়ে কাজ করুন। এরকারন হল আপনি নতুন ব্লোগিং শুরু করলে বুঝতে পারবেন না যে ব্লোগ পোস্ট কিভাবে লিখতে হয়, কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি অ্যাটিকেল লিখতে হয় (How To Write a SEO Friendly Articlel) সেই জন্য আপনি প্রথমে ফ্রি ব্লোগার দিয়ে ব্লোগিং শুরু করুন। 

তারপর যদি সঠিক ভাবে কাজ করতে চান তাহলে WordPress এ আসতে পারবেন।

অবশেষে একটা কথাই বলবো যে একজন নতুন ক্সিয়েটার এর জন্য ব্লোগার বেস্ট অপশন।

Leave a Comment