Rosa Bonheur | Rosa Bonheur Arts | canbebangali

 

রোসা বনহেউর(Rosa Bonheur) যা পুরো নাম মারিয়া রোসালী বনহেউর(Marie-Rosalie Bonheur) । রোসা বনহেউর ছিলেন একজন ফরাসি চিত্রশিল্পী। রোসা বনহেউর তার তৈরি চিত্র গুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রানীর চিত্র তৈরি করেছেন। এই ফরাসি চিত্রশিল্পীর জন্ম হয় – ১৬ মার্চ ১৮২২ সালে এবং মৃত্যু হয় ২৫ মে ১৮৯৯ সালে। রোসা বনহেউর এর চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে নিভার্নাইসে লাঙ্গল। যা প্রথম প্রর্দশিত হয়েছিল – ১৮৪৮ সালে প্যারিসে এবং প্যারিসের মুসি ডি অরসে এবং দ্য হর্স ফেয়ার ১৮৫৩ সালে প্রর্দশিত হয়েছিল। বর্তমান সময়ে এই সব চিত্রগুলি নিউ ইয়র্ক সিটির মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম অফ আর্ট এ সংরক্ষিত আছে। ঊনবিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে বিখ্যাত মহিলা চিত্রশিল্পী হিসাবে বিবেচিত করা হয় রোসা বনহেউর কে।

Rosa Bonheur

• Rosa Bonheur Full Name – Marie-Rosalie Bonheur

• Born – 16 March 1822, Bordeaux, France

• Died – 25 May 1899(Age 77) Thomery, France

• Nationality – French

• Known For – Printing, Sculpture

• Notable Work – Phoughing In The Nivernais, The Horse Fair

• Movement – Realism

Rosa Bonheur Personal Life 

ঊনবিংশ শতাব্দীর সময় নারীদের অনিচ্ছাকৃতভাবে চিত্র তৈরি করার শিক্ষা নিতে হতো। আর এমন সময় রোসা বনহেউর এর মতো নারী চিত্রশিল্পী বিখ্যাত হওয়ায় পর নারী চিত্রশিল্পীদের নতুন দরজা খুলে যায়।

রোসা বনহেউর নারী হলেও তিনি সবসময় পুরুষের পোশাক পড়ে থাকতেন।

রোসা বনহেউর এর রোমান্টিক জীবন ছিল লেসবিয়ান মতো অর্থাত, তিনি পুরুষের সাথে বিবাহ করেননি। তিনি নারীদের সঙ্গে যৌনসম্পর্ক ছিল। কিন্তু, রোসা বনহেউর এর নারীদের সঙ্গে যৌনসম্পর্ক ছিল কিনা তা স্পষ্ট নয়। 

রোসা বনহেউর তার জীবন সঙ্গী হিসাবে ৪০ বছর ধরে নাথালি মাইকাস নামে একজন নারীরা সাথে ছিলেন, নাথালি মাইকাস মৃত্যুর আগে পর্যন্ত। 

এরপর তিনি আমেরিকার এক চিত্রশিল্পী আনা এলিজাবেথ ক্লাম্পকের সাথে সম্পর্ক তৈরি করেন।

Rosa Bonheur শিক্ষা জীবন

রোসা বনহেউর কে ১৮৩৫ সালে ইস্কুল থেকে বেড় করে দেওয়া হয়। এই সময় বনহেউরকে তার বাবা তার নিজের স্টুড়িও তে চিত্র তৈরি শিক্ষা দিতে থাকে। অল্পবয়সী বনহেউর কিছু দিনের মধ্যেই সাফল্য লাভ করেন। কিন্তু এই যুগে এটা সাধারণ ব্যাপার ছিল। বনহেউর এর বাবা যখন দেখলো যে অল্পবয়সী মেয়েটি খুবই সুন্দর চিত্র তৈরি করতে পারছে, ঠিক এই সময় তার বাবা বনহেউর কে বলে যে সে যেন বাস্তব চিত্র তৈরি করার জন্য নিজেকে তৈরি করে। কিন্তু অল্পদিনের মধ্যেই সে এই কাজেও সাফল্য লাভ করে। 

১৮৩৬ সালের দিকে রোসা বনহেউর তার বাবার সকল ছাত্রদের মধ্যে প্রতিশ্রুতিশীল ছাত্র হিসাবে আবির্ভূত হয়। 

রোসা বনহেউর এই সময় নাথালি মাইকাস নামে এক জন ধনী নারীর চিত্র তৈরি করেছিলেন, এবং এই সময় থেকেই রোসা বনহেউর ও নাথালি মাইকাস এর মধ্যে সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। যা প্রায় আগে গিয়ে ৪০ বছর পর্যন্ত চলেছিল।

Leave a Comment